শুরুতেই তিন উইকেট নাই

দিনের শুরুতেই উইকেট পড়ার ধুম মিরপুরে। এক এক করে তিন তিনজন ব্যাটসম্যান সাজঘরে ফিরলেন। সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েসের পর সবশেষ বিদায় নিলেন সাব্বির রহমানও। তিন উইকেটই ঝুলিতে পুরেছেন ওজি পেসার প্যাট কামিন্স। আউট হওয়ার আগে সৌম্য করেন ৮ রান, বাকি দুইজন সাব্বির ও ইমরুলকে খালি হাতেই ফিরতে হয়েছে।

এর আগে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটিতে টস জিতে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন টাইগার দলনেতা মুশফিকুর রহিম। দুই পেসার এবং তিন স্পিনার নিয়ে ওজিদের বিপক্ষে একাদশ সাজিয়েছে টিম বাংলাদেশ। পেস আক্রমণে কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গী প্রস্তুতিতে সাফল্য পাওয়া শফিউল ইসলাম। আর স্পিনে তিন ত্রয়ী সাকিব আল হাসান, মেহেদী হাসান মিরাজ ও তাইজুল ইসলাম।

একাদশে নেই বাংলাদেশের মাটিতে সবচেয়ে সফল টেস্ট খেলোয়াড় মুমিনুল হক। বাদ পড়েছেন লিটন দাস এবং তাসকিন আহমেদ। তবে দুই বছর পর জাতীয় দলের ছেয়ার পেলেন নাসির হোসেন। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ঢাকা টেস্টের ১১ জনের একজন নাসির। সর্বশেষ ২০১৫ সালে সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে দেশের হয়ে টেস্ট খেলেছিলেন নাসির। এরপর আর সাদা জার্সি গায়ে উঠেনি তার।

আজ ৫০তম টেস্ট খেলতে নেমেছেন বাংলাদেশ দলের দুই নির্ভরযোগ্য তারকা সাকিব আল হাসান এবং তামিম ইকবাল। এছাড়া সাকিব আল হাসান অস্ট্রেলিয়া বাদে সবকটি টেস্ট দলের বিপক্ষে বোলিংয়ে পাঁচ উইকেট পেয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাঁচ উইকেট পেলে চতুর্থ বোলার হিসেবে এই কীর্তি গড়বেন সাকিব। মাইলফলকের সামনে ওজি স্পিনার নাথান লায়নও। তিন উইকেটের অপেক্ষায় আছেন তিনি। আর মাত্র তিন উইকেট শিকার করলেই অষ্টম অস্ট্রেলিয়ান বোলার হিসেবে ২৫০ উইকেটে পাবেন লায়ন।

২০০৬ সালে বাংলাদেশ সফরে এসেছিল অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। সেবার টাইগারদের বিপক্ষে তিনটি ওয়ানডে ও দুইটি টেস্ট ম্যাচ খেলেছিল অজিরা। তারপর বাংলাদেশের বিপক্ষে আর কোনো টেস্ট ম্যাচ খেলেনি অস্ট্রেলিয়া। দীর্ঘ ১১ বছর পর আবার অজিদের মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ। শক্তিমত্তায় বাংলাদেশের চেয়ে অনেক এগিয়ে অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এর আগে চারটি টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ। চারটি ম্যাচই হেরেছে টাইগাররা।

বাংলাদেশ একাদশ:

তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক ও অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান, সাব্বির রহমান, নাসির হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, শফিউল ইসলাম এবং মোস্তাফিজুর রহমান।

অস্ট্রেলিয়া একাদশ:

ডেভিড ওয়ার্নার, ম্যাট রেনশ, স্টিভেন স্মিথ (অধিনায়ক), উসমান খাজা, পিটার হ্যান্ডসকম্ব, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, ম্যাথু ওয়েড (উইকেটরক্ষক), অ্যাস্টন অ্যাগার, প্যাট কামিন্স, জস হ্যাজলেউড  এবং নাথান লায়ন।

আপনার মন্তব্য দিন

শেয়ার